পর্যটন স্পটে প্রেমিকাকে গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ৫

  • বিশেষ প্রতিনিধি
  • প্রকাশ: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ৯ মাস আগে
  • Print

 

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তের পর্যটন স্পট বারেক টিলায় এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার আলোচিত মামলার ৫ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে গ্রেফতার হলেন মোট ৫ জন।
বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেমম্ভর) মধ্যরাতে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে ৫ জনকে গ্রেফতার করে তাহিরপুর থানাপুলিশ।
গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সুলকাবাদ ইউনিয়নের ডলুরা গ্রামের মৃত আক্কাস আলীর ছেলে হৃদয় (২৩) ও মেয়ে আখি আক্তার প্রিয়া (১৯), একই গ্রামের রমজান আলীর ছেলে আব্দুল আজিজ (২৪), একই ইউনিয়নের মথুরকান্দি গ্রামের একলাস মিয়ার ছেলে সামওয়েল আহমদ ইশা (২০) এবং হৃদয় (২২)। এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে ঘটনার পর পর শামীম আহমেদ (২৬) নামে এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
জানা যায়, ‘ধর্ষণের শিকার’ কিশোরীর বাড়ি সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায়। সে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার বাঘবেড় গ্রামের তার এক বান্ধবীর বাড়িতে যাওয়া-আসা করতো। একপর্যায়ে বান্ধবীর ভাইয়ের বন্ধু হৃদয় আহমদের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত সোমবার মেয়েটি বান্ধবীর বাড়িতে গেলে হৃদয় আহমদ তাকে বেড়ানোর কথা বলে তাহিরপুর উপজেলার পর্যটন স্পট বারেক টিলায় নিয়ে যায়। এ সময় তাদের সঙ্গে হৃদয়ের আরও দুই বন্ধু পর্যটন এলাকা দেখতে যায়। ফেরার সময় টিলার নির্জন স্থানে নিয়ে তিনজন মিলে ওই কিশোরীকে গণধর্ষণ করে। পরে রাতে মোটরসাইকেলে করে তাকে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার রাধানগর এলাকায় ফেলে রেখে যায় ধর্ষণকারীরা। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, পর্যটনস্পট বারেক টিলায় গণধর্ষন ঘটনার মামলার ৫ আসামীকে বিভিন্ন স্থান থেকে বিশেষ অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের সুনামগঞ্জ কোর্ট হাজেতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ