ইসরায়েল সফরে যাচ্ছেন বাইডেন

  • বিশেষ প্রতিনিধি
  • প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০২৩, ৬:৫১ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ৮ মাস আগে
  • Print

১১ দিন ধরে চলছে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের যুদ্ধ। চলমান এ সংঘাতের মধ্যেই আগামীকাল বুধবার (১৮ অক্টোবর) ইসরায়েল সফরে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) ভোরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন তেল আবিব থেকে এ ঘোষণা দিয়েছেন।
তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই সফর ইসরায়েল, মধ্যপ্রাচ্য এবং বিশ্বের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে এসেছে। এই সময় ইসরায়েল সফর বাইডেনের নিরাপত্তা জন্য ঝুঁকি বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তবে এ বিষয়ে হোয়াইট হাউস কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।
এই যুদ্ধে এখন পর্যন্ত চার হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। এর মধ্যে প্রায় ১৪০০ ইসরায়েলি এবং ২৭৫০ জন ফিলিস্তিনি রয়েছে।
হামাস যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পরিকল্পনা সম্পর্কে বাইডেন আলোচনা করবেন। এছাড়া অভিযানের মধ্যেও বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা কীভাবে কমানো যায় সে বিষয়ে তিনি ইসরাইলের কাছ থেকে শুনবেন।
তিনি আরও বলেন, বাইডেনের সফর ইসরায়েলের প্রতি মার্কিন সংহতি এবং জেরুজালেমের নিরাপত্তার প্রতি ওয়াশিংটনের প্রতিশ্রুতি পুনর্নিশ্চিত করবে।
মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাইডেন ইসরায়েলের কাছ থেকে সরাসরি শুনবেন যে তাদের আত্মরক্ষার জন্য কী প্রয়োজন।
মার্কিন ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র জন কিরবি এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, বাইডেন বুধবার তেল আবিবে অবতরণ করবেন। বাইডেনের এই সফর ইসরায়েলের প্রতি আমাদের সংহতি পুনর্নিশ্চিত করা এবং গাজার বেসামরিক লোকদের সাহায্যের পথ খোলা।
তিনি আরও বলেন, বেসামরিক নাগরিকরা চাইলে গাজা ছেড়ে যাওয়ার জন্য নিরাপদ পথ তৈরি করতেও বাইডেন কাজ করবেন।
ইসরায়েল সফর শেষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্ডানের আম্মানে যাবেন বলে জানান তিনি। সেখানে তিনি জর্ডানের বাদশাহ আবদুল্লাহ, মিশরের প্রেসিডেন্ট আল-সিসি এবং ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে বৈঠক করবেন।
অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কূটনীতিক অ্যান্টনি ব্লিনকেন গত চার দিন ধরে মধ্যপ্রাচ্য চষে বেড়াচ্ছেন। গত ৭ অক্টোবর হামাসের সাথে ইসরায়েলের যুদ্ধ শুরুর পর তিনি আরব বিশ্বের ছয় দেশ জর্ডান, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব এবং মিসর সফর করেছেন। এই সফর শেষে সোমবার ইসরায়েলে ফিরে প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সাথে বৈঠক করেছেন তিনি।
তার এই সফরের উদ্দেশ্য গাজার বেসামরিক নাগরিকদের কীভাবে সর্বোত্তম মানবিক সহায়তা এবং বিদেশি নাগরিকদের চলে যেতে দেওয়া যায় সেই বিষয়ে আরব বিশ্বের চিন্তা-ভাবনা শোনা, জানা এবং আলোচনা করা। সূত্র: বিবিসি, আলজাজিরা,সিএনএন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ